22, January, 2017  ৯ মাঘ, ১৪২৩   09:43:51 AM
Weather Bangladesh, Dhaka 19.05 °C
ব্রেকিং নিউজ
 কামরাঙ্গীরচরে কবিরাজ বাচ্চু মিয়া হত্যা মামলায় পুত্রসহ ৪ জন গ্রেফতার  চ্যানেল আইতে ‘জনগণের পুলিশ: বাংলাদেশ পুলিশ’ প্রচারিত হবে ২৩ জানুয়ারি  তেজগাঁওয়ে হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটনঃ গ্রেফতার ৩  ডিএমপি’র মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযানে ৫২ জন গ্রেফতার
শিরোনাম
কুলিয়ারচরে বিশ্বের সবচেয়ে বড় তথ্য ও প্রযুক্তি ক্লাস অনুষ্ঠিত
আপডেট: ২০:৫৪, জানুয়ারী ১১, ২০১৭

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে বিশ্বের সবচেয়ে বড় তথ্য ও প্রযুক্তি ক্লাস অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৩টি স্কুলের তিন হাজার ২০০ শিক্ষার্থী নিয়ে ক্লাস পরিচালনা করেন জনপ্রিয় লেখক এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল।


আজ বুধবার দুপুর ১২টায় কুলিয়ারচর থানা মাঠে স্কুল পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক সবচেয়ে বৃহৎ এ ব্যবহারিক ক্লাস শুরু হয়। ড. জাফর ইকবাল ব্যবহারিক ক্লাসে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের তিন হাজার ২০০ শিক্ষার্থীকে চুম্বক ও কম্পাস বানাতে শেখান।
ইতিহাস গড়ার এই অনুষ্ঠান আয়োজন করে কুলিয়ারচর উপজেলা প্রশাসন। তারা আশা করছে, এই ব্যবহারিক ক্লাসটি গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে স্থান পাবে।


এখন পর্যন্ত স্কুলপর্যায়ে বিজ্ঞান বিষয়ে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ব্যবহারিক ক্লাস আয়োজনের রেকর্ড অস্ট্রেলিয়ার। তারা  দুই হাজার ৯০০ শিক্ষার্থীকে একসঙ্গে ক্লাস করিয়ে গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম উঠিয়েছিল। বুধবার তাদের চেয়ে ৩০০ শিক্ষার্থী বেশি নিয়ে ব্যবহারিক ক্লাস অনুষ্ঠিত হয়েছে কুলিয়ারচরে। এটি গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে স্থান পেলে এর মধ্য দিয়ে তৃতীয়বারের মতো সেখানে নাম উঠবে বাংলাদেশের।

এর আগে ২০১৩ সালের ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে এক লাখ ১১ হাজার বর্গফুটের মানব পতাকা বানিয়ে গিনেজে নাম লেখায় লাল-সবুজের পতাকা। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের প্যারেড গ্রাউন্ডে এই পতাকা বানাতে প্রয়োজন হয় ২৭ হাজার ১১৭ জন। পরের বছর ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে একই জায়গায় লাখো কণ্ঠে জাতীয় সংগীত ‘আমার সোনার বাংলা’ গেয়ে সবচেয়ে বেশিসংখ্যক মানুষের সমবেত কণ্ঠের রেকর্ড করা হয়।

 


কুলিয়ারচরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ড. উর্মি রহমান জানান, ইতিহাস গড়ার ডিজিটাল ক্লাসে ২০টির বেশি ‘শ্রেণিকক্ষ’ করা হয়। প্রতিটিতে ছিল অত্যাধুনিক সাউন্ড সিস্টেম ও ৪২ ইঞ্চি এলইডি টিভি। ব্যবহারিক ক্লাসে একই সঙ্গে বিশ্বের সবচেয়ে ছোট সার্টিফিকেট তৈরির রেকর্ড করা হয়। ক্লাসে অংশ নেয়া ৩ হাজার ২০০ শিক্ষার্থীকে বিশ্বের সবচেয়ে ছোট সার্টিফিকেট দেয়া  হয়।


ক্লাসের পর অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এ ছাড়া ভৈরব-কুলিয়ারচর আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, জেলা প্রশাসক আজিমদ্দিন বিশ্বাসসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সূত্র: ঢাকাটাইমস

 


পঠিতঃ ৩৬

মন্তব্যসমূহ

কোন মন্তব্য নাই।