22, January, 2017  ৯ মাঘ, ১৪২৩   09:42:52 AM
Weather Bangladesh, Dhaka 19.05 °C
ব্রেকিং নিউজ
 কামরাঙ্গীরচরে কবিরাজ বাচ্চু মিয়া হত্যা মামলায় পুত্রসহ ৪ জন গ্রেফতার  চ্যানেল আইতে ‘জনগণের পুলিশ: বাংলাদেশ পুলিশ’ প্রচারিত হবে ২৩ জানুয়ারি  তেজগাঁওয়ে হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটনঃ গ্রেফতার ৩  ডিএমপি’র মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযানে ৫২ জন গ্রেফতার
শিরোনাম
২৪ জানুয়ারি শুরু শিশু চলচ্চিত্র উৎসব
আপডেট: ১১:০৪, জানুয়ারী ১১, ২০১৭

Image result for শিশু চলচ্চিত্র উৎসব

‘ফ্রেমে ফ্রেমে আগামী স্বপ্ন’ স্লোগান নিয়ে আবারও শুরু হচ্ছে আন্তর্জাতিক শিশু চলচ্চিত্র উৎসব। চিলড্রেনস্ ফিল্ম সোসাইটি বাংলাদেশের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এবার বসছে এর ১০ম আসর। আগামী ২৪-৩০ জানুয়ারি এই উৎসব অনুষ্ঠিত হবে একই সঙ্গে ঢাকা, রাজশাহী, রংপুর। পরবর্তিতে ৩ ও ৪ ফেব্রুয়ারি উৎসব হবে চট্টগ্রামে। রাজধানীর সেগুনবাগিচার মুক্তিযুদ্ধ যাদুঘরে মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথা জানান উৎসব পরিচালক মোহাম্মদ আবীর ফেরদৌস। এ সময় উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা মোরশেদুল ইসলাম, মুনিরা মোরশেদ মুন্নি প্রমুখ।

 

এ সময় লিখিত বক্তব্যে উৎসব পরিচালক জানান, ঢাকায় মূল উৎসব কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হবে কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরির শওকত ওসমান মিলনায়তন। উদ্বোধনী দিন ছাড়া প্রতিদিন সকাল ১১ টা, দুপুর ২ টা, বিকেল ৪ টা ও সন্ধ্যে ৬ টায় মোট ৪টি করে চলচ্চিত্র দেখানো হবে। এবারের উৎসবে সারাদেশের মোট ১১ টি ভেন্যুতে ৫৪টি দেশের দুই শতাধিক শিশুতোষ চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। উৎসবের সকল প্রদর্শনী অভিভাবকসহ শিশু-কিশোরদের জন্য উন্মুক্ত।

 

কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরি চত্বর ও শওকত ওসমান মিলনায়তনে ২৪ জানুয়ারি (শনিবার) বিকেল ৪টায় উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে। এই বিভাগে এবার ৬০টি চলচ্চিত্র জমা পড়েছিলো, যার মধ্যে নির্বাচিত ২১টি চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হচ্ছে। এই ২১টি চলচ্চিত্রের মধ্যে ৫টি চলচ্চিত্র পুরস্কার পাবে। পুরস্কার হিসেবে থাকছে ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও আর্থিক প্রণোদনা। পুরস্কারের জন্য গঠিত ৫ সদস্যের জুরি বোর্ডের সবাইও শিশু-কিশোর অর্থাৎ ছোটরাই বাছাই করবে ছোটদের নির্মিত শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রগুলো।

 

প্রতিযোগিতা বিভাগে যাদের ছবি দেখানো হবে তাদেরকে উৎসব কমিটির পক্ষ থেকে প্রতিনিধি হিসেবে উৎসবে অংশ নেয়ার আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এছাড়াও সুবিধাবঞ্চিত এবং শারীরিকভাবে প্রতিবন্ধী শিশুদেরও উৎসব প্রতিনিধি হিসেবে উৎসবে অংশ নেয়ার আমন্ত্রন জানানো হবে।

 


এবারও ইয়াং বাংলাদেশী ট্যালেন্ট শীর্ষক বিভাগটি রয়েছে যেখানে ১৯ থেকে ২৫ বছর বয়সী তরুণ নির্মাতারা অংশ নেবেন। এছাড়া রয়েছে সোস্যাল ফিল্ম বিভাগ, যেখানে আবহাওয়া ও জলবায়ু নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্রগুলোকে নিয়ে একটি প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। একই সাথে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা বিভাগে উৎসব কমিটির দ্বারা মনোনীত বাংলাদেশসহ অন্যান্য দেশের মোট ২০টি চলচ্চিত্র অংশ নিবে।  এই চলচ্চিত্রগুলো বিচার করার জন্য ভারতের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ ডিজাইনের শিক্ষক শেখর মুখার্জী, চলচ্চিত্রকার অমিতাভ রেজা ও  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গনমাধ্যম এবং সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষিকা সাবরিনা সুলতানাকে সদস্য করে একটি জুরি বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

 

এছাড়া প্রথমবারের মতো বিভিন্ন দেশের শিশুদের বানানো চলচ্চিত্র নিয়ে একটি প্রতিযোগিতা বিভাগ থাকছে, যেখান থেকে একটি চলচ্চিত্রকে পুরষ্কার দেয়া হবে। এবার উৎসবে বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ১৫জন বিদেশী অতিথি উৎসবে প্রতিনিধি  হিসেবে অংশগ্রহণ করবে। রয়েছে বিভিন্ন ইন্টারেক্টিভ সেশন যেখানে প্রতিনিধিরা বিভিন্ন বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গের সাথে আলাপচারিতার সুযোগ পাবে।

 

উৎসবের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠান হবে ৩০ জানুয়ারি বিকেল ৫টায় কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরির শওকত ওসমান মিলনায়তনে। সমাপনীতে সব প্রতিযোগিতা বিভাগে অংশ নেয়া চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে পুরস্কারপ্রাপ্তদের নাম ঘোষণা ও পুরস্কার প্রদান করা হবে।সূত্রঃ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম


পঠিতঃ ১৯

মন্তব্যসমূহ

কোন মন্তব্য নাই।