27, February, 2017  ১৫ ফাল্গুন, ১৪২৩   12:41:47 PM
Weather Bangladesh, Dhaka 30 °C
ব্রেকিং নিউজ
 দেশীয় অস্ত্রসহ আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৪ সদস্য গ্রেফতার  খিলগাঁওয়ে দেশীয় অস্ত্রসহ গ্রেফতার ২  রাজধানীতে ৪৪ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার  ট্রাফিক আইন অমান্য করায় ১৯ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা ও ৪৭২৫টি মামলা
শিরোনাম
রামপুরা ট্রাফিক জোন ৮ম বারের মত শ্রেষ্ঠ
আপডেট: ১৭:৩৬, জানুয়ারী ০৯, ২০১৭

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের নবসৃষ্ট রামপুরা ট্রাফিক জোন ৯ জানুয়ারী/২০১৭ সোমবার ডিএমপি হেডকোয়ার্টার্সের ডিসেম্বর/২০১৬ মাসের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় ৮ম বারের মত শ্রেষ্ঠ জোন নির্বাচিত হয় এবং সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার হিসাবে মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সম্মানিত কমিশনার মোঃ আছাদুজ্জামান মিয়া বিপিএম, পিপিএম এর নিকট হতে ৮ম বারের মত শ্রেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনারের পুরস্কার গ্রহণ করেন।

 

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের নবসৃষ্ট রামপুরা ট্রাফিক জোন গত ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ সৃষ্টির পর থেকে ট্রাফিক সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও জনসেবায় ধারাবাহিক ভাবে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন, ব্যতিক্রমী , সৃষ্টিশীল ও ফুলেল শুভেচ্ছাসহ বিভিন্ন কার্যকরী  উদ্যোগের মাধ্যমে  ট্রাফিক পূর্ব বিভাগে ১১ বার এবং ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ২২টি ট্রাফিক জোনের মধ্যে রামপুরা ট্রাফিক জোন ৮ম বার শ্রেষ্ঠ ট্রাফিক জোন নির্বাচিত হয়েছে।

 

নতুন নতুন ব্যতিক্রমী সেবাধর্মী ও উৎসাহমূলক কার্যক্রমের মাধ্যমে রামপুরা ট্রাফিক জোন জনসেবায় কাজ যাচ্ছে, সম্প্রতি সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ জাহাঙ্গীর আলম এর নেতৃত্বে দৃষ্টিনন্দন ও প্রশাংসামূলক কিছু কার্যক্রম লক্ষ্য করা যায়, তা হলো-

 

১.ফুলেল শুভেচ্ছার মাধ্যমে ট্রাফিক সচেতনামূলক কার্যক্রমের পাশাপাশি ট্রাফিক আইন মেনে চলায় পথচারী ও সাধারণ জনগণকে উদ্বুদ্ধ করেন। সম্প্রতি সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ জাহাঙ্গীর আলম এর নেতৃত্বে ডিসেম্বর/২০১৬ মাসে রামপুরা ট্রাফিক জোন এলাকায় বিভিন্ন গণপরিবহনের চালকদের সাথে মতবিনিময় করেন এবং ট্রাফিক আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার আহবান জানান। এছাড়াও স্থানীয় জনগণ, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি, ও দোকান মালিক সমিতির সাথে মতবিনিময় করেন এবং তাদেরকে সাথে নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইন্টারসেকশনে ট্রাফিক সচেতনতামূলক বক্তব্য প্রদান করেন এবং রাস্তার পার্শ্বে থাকা অবৈধ স্থায়ী ও অস্থায়ী স্থাপনা দ্রুত সরিয়ে নেয়ার অনুরোধ জানান। রামপুরা ট্রাফিক জোনের এরকম উদ্যোমী কার্যক্রমে উদ্ধুধ হয়ে সকলে ট্রাফিক আইন মেনে চলার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন যা বিভিন্ন মহলে প্রসংশিত হয়।

 

২. স্থায়ী যানজট নিরসনে ডেমরা ষ্টাফ কোয়ার্টার এলাকাকে নতুনভাবে সাজান ও বামমূখী গাড়ী গুলো নির্বিঘেœ যাতায়াতের জন্য লেন তৈরী করেন।

 

৩.রামপুরা ট্রাফিক জোন এলাকায় বিভিন্ন সময় জনগণের সাথে মতবিনিময় ও সচেতনামূলক কার্যক্রমের পাশপাশি জনগণকে সাথে নিয়ে ট্রাফিক সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় গুরুত্বপূর্ণ  ভ’মিকা রাখেন।

 

৪.বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রোডে জনগণের যাতায়াত সহজ ও দ্রুত করতে রিক্সালেন তৈরী করেন।

 

৫.বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ট্রাফিক ইন্টারসেকশন ও রাস্তার  স্থায়ী ও অস্থায়ী অবৈধ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনার মাধ্যমে সুষ্টু ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা অব্যাহত রাখেন।

 

সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম (রামপুরা ট্রাফিক জোন) জানান, ডিসি ট্রাফিক পূর্ব বিভাগ স্যারের দিক- নির্দেশনায় জনসেবায় রামপুরা ট্রাফিক জোন সর্বদা কাজ করে যাচ্ছে, ভবিষ্যতেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে।
 


পঠিতঃ ১৬৭

মন্তব্যসমূহ

কোন মন্তব্য নাই।