20, February, 2017  ৮ ফাল্গুন, ১৪২৩   12:14:23 PM
Weather Bangladesh, Dhaka 24.43 °C
ব্রেকিং নিউজ
 রাজধানীতে ছিনতাইকারী চক্রের ২ সদস্য গ্রেফতার  ডিএমপি’তে সহকারী পুলিশ কমিশনার পদে বদলি  বাড্ডায় দেশীয় অস্ত্রসহ তিন ডাকাত গ্রেফতার  ট্রাফিক আইন অমান্য করায় ১৮,৪৯,৮৫০টাকা জরিমানা ও ৪২৯৬ টি মামলা  ডিএমপি’র বিশেষ অভিযানে ৩৩ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার  মহান একুশে ফেব্রুয়ারী’১৭ উদযাপন উপলক্ষে ডিএমপি কর্তৃক গৃহীত নিরাপত্তা ব্যবস্থা  শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-২০১৭ উপলক্ষে ডিএমপি’র গৃহীত ট্রাফিক ব্যবস্থা
শিরোনাম
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ১৯৯০
 
 
 
এ্যালকোহল ব্যতীত মাদকদ্রব্যের উৎপাদন ইত্যাদি নিষিদ্ধ
ধারা-৯ 
(১) এ্যালকোহল ব্যতীত অন্য কোন মাদকদ্রব্যের চাষাবাদ, উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাতকরণ, বহন, পরিবহন, আমদানী, রপ্তানী, সরবরাহ, ক্রয়, বিক্রয়, ধারণ, সংরক্ষণ, গুদামজাতকরণ, প্রদর্শন  প্রয়োগ ও ব্যবহার করা যাইবে না, অথবা এতদুদ্দেশ্যে কোন প্রচেষ্টা বা উদ্যোগ গ্রহণ, অর্থ বিনিয়োগ কিংবা কোন প্রতিষ্ঠান স্থাপন, পরিচালনা বা উহার পৃষ্ঠপোষকতা করা যাইবে না৷
(২) কোন মাদকদ্রব্যের উৎপাদনে ব্যবহৃত হয় এই প্রকার কোন দ্রব্য বা উদ্ভিদের চাষাবাদ, উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাতকরণ, বহন, পরিবহন, আমদানী, রপ্তানী, সরবরাহ, ক্রয়, বিক্রয়, ধারণ, সংরক্ষণ, গুদামজাতকরণ, প্রদর্শন, প্রয়োগ ও ব্যবহার করা যাইবে না৷
(৩) উপ-ধারা (১) ও (২) এ যাহা কিছুই থাকুক না কেন, উক্ত উপ-ধারাদ্বয়ে উল্লিখিত কোন মাদকদ্রব্য, দ্রব্য বা উদ্ভিদ কোন আইনের অধীন অনুমোদিত কোন ঔষধ প্রস্তুত শিল্পে ব্যবহার, চিকিৎসা বা কোন বৈজ্ঞানিক গবেষণার জন্য প্রয়োজন হইলে উহা এই আইনের অধীন প্রদত্ত-
(ক) লাইসেন্সবলে চাষাবাদ, উৎপাদন প্রক্রিয়াজাতকরণ, আমদানী, রপ্তানী, সরবরাহ, ক্রয়, বিক্রয়, ধারণ, সংরক্ষণ, গুদামজাতকরণ ও প্রদর্শন করা যাইবে;
(খ) পারমিটবলে প্রয়োগ ও ব্যবহার করা যাইবে;
(গ) পাসবলে বহন বা পরিবহন করা যাইবে৷
(৪) উপ-ধারা (৩) এর অধীন উৎপাদিত, প্রক্রিয়াজাত এবং আমদানীকৃত মাদকদ্রব্যের মোড়ক ও লেবেলের উপর উহার অপব্যবহারের বিপদ সম্পর্কে সতর্কবানী স্পষ্টাক্ষরে মুদ্রণ বা ছাপাংকন করিতে হইবে৷
(৫) যাত্রী পরিবহনে নিয়োজিত কোন জলযান, আকাশযান বা স্থলযানে জরুরী চিকিৎসার প্রয়োজনে চিকিৎসকের নিয়ন্ত্রণে রক্ষিত প্রাথমিক চিকিৎসা বাক্সে, যদি থাকে, সরকার কর্তৃক, সরকারী গেজেটে প্রজ্ঞাপন দ্বারা, নির্ধারিত পরিমাণ ঔষধ হিসাবে ব্যবহার যোগ্য মাদকদ্রব্য সংরক্ষণ, বহন, পরিবহন, প্রয়োগ ও ব্যবহার করার ক্ষেত্রে এই ধারার কোন কিছুই প্রযোজ্য হইবে না৷
এ্যালকোহল উৎপাদন ইত্যাদি সম্পর্কে বিধান
ধারা-১০
(১) এই আইনের অধীন প্রদত্ত লাইসেন্স ব্যতিরেকে কোন ব্যক্তি-
(ক) কোন ডিষ্টিলারী বা ব্রিউয়ারী স্থাপন করিতে পারিবেন না;
(খ) কোন এ্যালকোহল উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাতকরণ, বহন, পরিবহন, আমদানী, রপ্তানী, সরবরাহ, ক্রয়, বিক্রয়,   ধারণ, সংরক্ষণ, গুদামজাতকরণ, প্রদর্শন ও ব্যবহার করিতে পারিবেন না;
(গ) কোন এ্যালকোহল ঔষধ তৈরীর উপাদান হিসাবে ব্যবহার করিতে পারিবেন না৷
(২) এই আইনের অধীন প্রদত্ত পারমিট ব্যতীত কোন ব্যক্তি এ্যালকোহল পান করিতে পারিবেন না; এবং চিকিত্সার   প্রয়োজনে অন্যুন সিভিল সার্জন বা মেডিক্যাল কলেজের মেডিসিন বিভাগের কোন সহযোগী অধ্যাপকের লিখিত ব্যবস্থাপত্রের ভিত্তি ছাড়া কোন মুসলমানকে এ্যালকোহল পান করার জন্য পারমিট দেওয়া যাইবে না :
তবে শর্ত থাকে যে,-
(ক) মুচি, মেথর, ডোম, চা বাগানের কুলি ও উপ-জাতীয়গণ কর্তৃক তাড়ী ও পঁচুই পান করার ক্ষেত্রে, এবং
(খ) রাংগামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলাসমূহের উপ-জাতীয়গণ কর্তৃক ঐতিহ্যগতভাবে প্রস্তুতকৃত মদ   উক্ত জেলাসমূহের উপ-জাতীয়গণ কর্তৃক পান করার ক্ষেত্রে, এই উপ-ধারার কোন কিছুই প্রযোজ্য হইবে না৷]
(৩) উপ-ধারা (২) এর অধীন প্রদত্ত ব্যবস্থাপত্রে যে রোগের চিকিৎসার জন্য এ্যালকোহল ব্যবহার করা আবশ্যিক   সেই রোগের নাম উল্লেখ করিতে হইবে এবং উক্তরূপ আবশ্যকতা সম্পর্কে ব্যবস্থাপত্রে চিকিৎসকের প্রত্যয়ন থাকিতে হইবে৷
(৪) এই ধারায় যাহা কিছুই থাকুক না কেন, কোন বিদেশী নাগরিক লাইসেন্স প্রাপ্ত বার এ বসিয়া এ্যালকোহল পান করিতে পারিবেন৷
(৫) কুটনৈতিক পাসপোর্ট ধারী বিদেশী নাগরিক বা শুল্ক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত পাসবইধারী বা প্রচলিত ব্যাগেজ রুলস এর দ্বারা স্বীকৃত ব্যক্তির ক্ষেত্রে ক্ষেত্রমত এ্যালকোহল আমদানী, রপ্তানী, ক্রয়, বহন, সংরক্ষণ বা পানের ব্যাপারে এই ধারার কোন কিছুই প্রযোজ্য হইবে না৷
অপরাধ সংঘটনে গৃহ বা যানবাহন ইত্যাদি ব্যবহার করিতে দেওয়ার দন্ড
ধারা-১৯
(১) কোন ব্যক্তি নিম্ন টেবিলের কলাম (২) এ উল্লিখিত কোন মাদকদ্রব্য সম্পর্কে ধারা ৯ এর উপ-ধারা (১) বা (২) এর, চাষাবাদ উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাতকরণ, প্রয়োগ ও ব্যবহার সম্পর্কিত বিধান ব্যতীত, কোন বিধান লঙ্ঘন করিলে, তিনি উক্ত মাদকদ্রব্যের বিপরীতে টেবিলের কলাম (৩) এ উল্লিখিত দণ্ডে দণ্ডনীয় হইবেন, যথা:-
টেবিল
ক্রমিক নং মাদকদ্রব্যের নাম দন্ড 
১.হেরোইন, কোকেন এবং কোকা উদ্ভূত মাদকদ্রব্য ...
(ক) মাদকদ্রব্যের পরিমাণ অনূর্ধ্ব ২৫ গ্রাম হইলে অন্যুন ২ বৎসর এবং অনূর্ধ্ব ১০ বৎসর কারাদণ্ড ৷
(খ) মাদকদ্রব্যের পরিমাণ ২৫ গ্রাম এর ঊর্ধ্বে হইলে মৃত্যুদণ্ড অথবা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ৷
২.পেথিডিন, মরফিন ও টেট্রাহাইড্রোক্যানাবিনল
(ক) মাদকদ্রব্যের পরিমাণ অনূর্ধ্ব ১০ গ্রাম হইলে অন্যুন ২ বৎসর এবং অনূর্ধ্ব ১০ বৎসর কারাদণ্ড৷
(খ) মাদকদ্রব্যের পরিমাণ ১০ গ্রাম এর ঊর্ধ্বে হইলে মৃত্যুদণ্ড অথবা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড৷
৩.অপিয়াম, ক্যানাবিস রেসিন বা অপিয়াম উদ্ভূত, তবে হেরোইন ও মরফিন ব্যতীত, মাদকদ্রব্য
(ক) মাদকদ্রব্যের পরিমাণ অনূর্ধ্ব ২ কেজি হইলে অন্যুন ২ বৎসর এবং অনূর্ধ্ব ১০ বৎসর কারাদণ্ড ৷
(খ) মাদকদ্রব্যের পরিমাণ ২ কেজির ঊর্ধ্বে হইলে মুত্যুদণ্ড অথবা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ৷
৪.মেথাডন
(ক) মাদকদ্রব্যের পরিমাণ অনূর্ধ্ব ৫০ গ্রাম হইলে অন্যুন ২ বত্সর এবং অনূর্ধ্ব ১০ বৎসর কারাদণ্ড ৷
(খ) মাদকদ্রব্যের পরিমাণ ৫০ গ্রাম এর ঊর্ধ্বে হইলে মৃত্যুদণ্ড অথবা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ৷
৫.ক-শ্রেণীর অন্যান্য মাদকদ্রব্য অন্যুন ২ বৎসর এবং অনূর্ধ্ব ১৫ বৎসর কারাদণ্ড ৷
৬.গাঁজা বা যে কোন ভেষজ ক্যানাবিস
(ক) মাদকদ্রব্যের পরিমাণ অনূর্ধ্ব ৫ কেজি হইলে অন্যুন ৬ মাস এবং অনূর্ধ্ব ৩ বৎসর কারাদণ্ড ৷
(খ) মাদকদ্রব্যের পরিমাণ ৫ কেজির ঊর্ধ্বে হইলে অন্যুন ৩ বত্সর এবং অনূর্ধ্ব ১৫ বৎসর কারাদণ্ড ৷
৭.যে কোন প্রজাতির ক্যানাবিস গাছ
(ক) ক্যানাবিস গাছের সংখ্যা অনূর্ধ্ব ২৫টি হইলে অন্যুন ৬ মাস এবং অনূর্ধ্ব ৩ বৎসর কারাদণ্ড ৷
(খ) ক্যানাবিস গাছের সংখ্যা ২৫টির বেশী হইলে অন্যুন ৩ বৎসর এবং অনূর্ধ্ব ১৫ বৎসর কারাদণ্ড ৷
৮.ফেনসাইক্লিআইন, মেথাকোয়ালন এল, এস, ডি, বারবিরেটস এ্যামফিটামিন, অথবা এইগুলির যে কোনটি দ্বারা প্রস্তুত মাদকদ্রব্য
(ক) মাদকদ্রব্যের পরিমাণ অনূর্ধ্ব ৫ গ্রাম হইলে অন্যুন ৬ মাস এবং অনূর্ধ্ব ৩ বৎসর কারাদণ্ড৷
(খ) মাদকদ্রব্যের পরিমাণ ৫ গ্রাম এর ঊর্ধ্বে হইলে অন্যুন ৫ বৎসর এবং অনূর্ধ্ব ১৫ বৎসর কারাদণ্ড ৷
৯.খ-শ্রেণীভুক্ত অন্যান্য মাদকদ্রব্য
অন্যুন ৬ মাস অনূর্ধ্ব ৫ বৎসর কারাদণ্ড ৷
১০.গ-শ্রেণীর মাদকদ্রব্য
অনূর্ধ্ব এক বৎসর বা অনূর্ধ্ব ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয়দণ্ড ৷
(২) কোন ব্যক্তি ক-শ্রেণীর কোন মাদকদ্রব্যের চাষাবাদ উৎপাদন বা প্রক্রিয়াজাত করিলে, তিনি অন্যুন ২ বৎসর এবং অনূর্ধ্ব ১৫ বৎসর কারাদণ্ডে দণ্ডনীয় হইবেন এবং ইহার অতিরিক্ত অর্থদণ্ডেও দণ্ডনীয় হইবেন৷
(৩) কোন ব্যক্তি খ ও গ-শ্রেণীর কোন মাদকদ্রব্যের চাষাবাদ উৎপাদন বা প্রক্রিয়াজাত করিলে, তিনি অন্যুন ২ বৎসর এবং অনূর্ধ্ব ১০ বৎসরের কারাদণ্ডে দণ্ডনীয় হইবেন এবং ইহার অতিরিক্ত অর্থদণ্ডেও দণ্ডনীয় হইবেন৷
(৩ক) কোন ব্যক্তি ধারা ৯ এর উপ-ধারা (১) ও (২) এ উল্লেখিত মাদকদ্রব্যের প্রয়োগ ও ব্যবহার সম্পর্কিত কোন বিধান লঙ্ঘন করিলে, তিনি-
(ক) ক-শ্রেণীর কোন মাদকদ্রব্যের ক্ষেত্রে, অন্যুন ২ বত্সর এবং অনূর্ধ্ব ৭ বৎসর কারাদণ্ডে দণ্ডনীয় হইবেন এবং ইহার অতিরিক্ত অর্থ দণ্ডেও দণ্ডনীয় হইবেন;
(খ) খ-শ্রেণীর কোন মাদকদ্রব্যের ক্ষেত্রে, অন্যুন ১ বৎসর এবং অনূর্ধ্ব ৫ বত্সর কারাদণ্ডে দণ্ডনীয় হইবেন এবং ইহার অতিরিক্ত অর্থদণ্ডেও দণ্ডনীয় হইবেন;
(গ) গ-শ্রেণীর কোন মাদকদ্রব্যের ক্ষেত্রে, অন্যুন ৬ মাস এবং অনূর্ধ্ব ২ বৎসর কারাদণ্ডে দণ্ডনীয় হইবেন এবং ইহার অতিরিক্ত অর্থদণ্ডেও দণ্ডনীয় হইবেন;
(৩খ) উপ-ধারা (৩ক) এ যাহা কিছুই থাকুক না কেন, আদালত, অপরাধের গুরুত্ব বিবেচনা করিয়া, কোন মাদকদ্রব্য ব্যবহারকারীকে উক্ত উপ-ধারায় উল্লিখিত দণ্ডের অতিরিক্ত হিসাবে বা উক্ত দণ্ডের পরিবর্তে কোন মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে চিকিৎসার জন্য প্রেরণের আদেশ দিতে পারিবে৷
(৪) উপ-ধারা (১) এর টেবিলে, ক্রমিক নং (১১) ব্যতীত, উল্লেখিত প্রত্যেক অপরাধের জন্য সংশ্লিষ্ট অপরাধী উহাতে উল্লেখিত দণ্ডের অতিরিক্ত অর্থ দণ্ডেও দণ্ডনীয় হইবেন৷
(৫) এই ধারায় উল্লিখিত কোন অপরাধের জন্য দণ্ডিত হইয়া দণ্ড ভোগ করিবার পর যদি কোন ব্যক্তি পুনরায় এই ধারার উল্লিখিত কোন অপরাধ করেন, তাহা হইলে উক্ত অপরাধের দণ্ড মৃত্যুদণ্ড বা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড না হইলে, তিনি উক্ত অপরাধের জন্য সর্বোচ্চ যে দণ্ড রহিয়াছে উহার দ্বিগুন দণ্ডে দণ্ডনীয় হইবেন৷
মাদকদ্রব্য উৎপাদনে ব্যবহারযোগ্য যন্ত্রপাতি ইত্যাদি রাখার দন্ড  
ধারা-২০ 
এই আইনের অধীন প্রদত্ত লাইসেন্সপ্রাপ্ত নন এইরূপ কোন ব্যক্তির নিকট বা তাহার দখলকৃত কোন স্থানে যদি মাদকদ্রব্য উৎপাদনে ব্যবহারযোগ্য কোন যন্ত্রপাতি, সাজ-সরঞ্জাম বা ওয়াশসহ অন্যান্য উপকরণ পাওয়া যায়, তাহা হইলে তিনি অন্যুন ২ বত্সর এবং অনূর্ধ্ব ১৫ বৎসর কারাদণ্ডে দণ্ডনীয় হইবেন এবং ইহার অতিরিক্ত অর্থদণ্ডেও দণ্ডনীয় হইবেন৷
অপরাধ সংঘটনে গৃহ বা যানবাহন ইত্যাদি ব্যবহার করিতে দেওয়ার দন্ড
ধারা-২১ 
কোন ব্যক্তি যদি সজ্ঞানে এই আইনের অধীন কোন অপরাধ সংঘটনের জন্য তাঁহার মালিকানাধীন বা দখলীয় কোন বাড়ী-ঘর, জায়গা-জমি, যানবাহন, যন্ত্রপাতি বা সাজ-সরঞ্জাম ব্যবহার করিতে অনুমতি দেন, তাহা হইলে তিনি অনূর্ধ্ব ৫ বৎসর কারাদণ্ডে বা অর্থদণ্ডে বা উভয়দণ্ডে দণ্ডনীয় হইবেন৷
প্রথম তফসিল
ধারা ২ (৬) দ্রষ্টব্য
 
‘ক’ শ্রেণীর মাদকদ্রব্য
১। অপিয়াম পপি বা তৎনিঃসৃত আঠালো পদার্থ।
২। পরিশোধিত, অপরিশোধিত, তৈরীকৃত যে কোন আফিম বা আফিম সহযোগে তৈরী যে কোন পদার্থ। 
৩। আফিম উদ্ভূত মাদকদ্রব্যসমূহ যথা: মরফিন, কোডিন, হেরোইন, বুপ্রেণরফাইন, থিবাইন, নোজকাপাইন,  নারকটিন,প্যাপাভারিন ইত্যাদি এবং ইহাদের ক্ষারসমূহ। 
৪। শতকরা ০.২ এর অধিক মরফিনযুক্ত যে কোন পদার্থ।
৫। আফিমের সমধর্মী কৃত্রিম উপায়ে তৈরী কোন মাদকদ্রব্য যথা: পেথিডিন, মেপারডাইন,  মেথাডন,  ডেকসট্রোমোরামইড, ডাইহাইড্রোকোডিন,  মেপারডাইন ফেনটানাইল, পেন্টাযোকাইন, হাইড্রোমরফিন  ,অমনোপন, আলফাপ্রোডাইন, ডিমেরাল, অক্সিকোডন, এট্রোফাইন, লোফেন্টাইল, আলফেন্টানাইল, আলফামিথাইল ফেন্টানাইল, ৩-মিথাইন ফেন্টানাইল, এ্যাসসিট্রোফাইন, এসিটাইল মেথাডল, আলফাসিটাইল মেথাডল, বেটাপ্রোডাইন, ইত্যাদি। 
৬। কোকা পাতা, কোকেন, বা কোকা উদ্ভূত সকল মাদকদ্রব্য। 
৭। শতকরা ০.১ এর অধিক কোকেনযুক্ত যে কোন পদার্থ অথবা কোকেনের যে কোন ক্ষার। 
৮। যে কোন রূপে টেট্রাহাইড্রোকেনাবিনল, ক্যানাবিস রেসিন বা চরস, বা হাশিশ ইত্যাদি। 
৯। এফিড্রিন, এরগোমেট্রিন, এরগোটামিন, লাইসারজিক এসিড, ১-ফেনাইল-২প্রোপানন, সিউডো এফিড্রিন, এন-এসিটাইল এনথ্রানিলিক এসিড, আইসোস্যাফরোল, ৩,৪-মিথাইল এনিডাইওক্সিফেনাইল-২-প্রোপানন, পিপারোনাল, স্যাফরোল, এসিটিক এ্যানহাইড্রাইড, এসিটোন, এ্যানথ্রানিলিক এসিড, ইথাইল ইথার ফিনাইলাসিটিক এসিড, পিপারিডাইন, হাইড্রোক্লোরিক এসিড, মিথাইল-ইথাইল-কিটোন, পটাশিয়াম পারমাংগানেট, সালফিউরিক এসিড, টলুইন।
১০। মেসকালাইন।
 
‘খ’ শ্রেণীর মাদকদ্রব্য
১। গাঁজা গাছ, গাঁজা, ভাং ভাং গাছ অথবা গাঁজা বা ভাং সহযোগে প্রস্তুত যে কোন পদার্থ। 
২। নেশার উৎস রুপে ব্যবহৃত হইতে পারে (তামাক ব্যতীত) এমন অন্যান্য যে কোন উদ্ভিদ।
৩। এ্যালকোহল, সকল প্রকার মদ, রেক্টিফাইড স্পিরিট, রেক্টিফাইড স্পিরিট সহযোগে প্রস্তুত যে কোন ঔষধ বা তরল পদার্থ ওয়াশ রিয়াশ,রিয়ার (বিয়ার) কিংবা ০.৫% (দশমিক পাঁচ শতাংশ) এর অধিক এ্যালকোহলযুক্ত যে কোন তরল পদার্থ।
৪। এল.এস.ডি কিংবা এল.এস.ডি. যে কোন তরল পদার্থ।
৫। বারবিচুরেটস বা সমগোত্রীয় যে কোন পদার্থ।
৬। এ্যামফিটামিন, মিথাইল এ্যামফিটামিন বা এ্যামফিটামিনযুক্ত যে কোন বস্তু।
৭। ফেনসাইক্লিডাইন, সাইলোসাইবিন, নিকোকোডাইন  বা এইগুলি যুক্ত যে কোন পদার্থ। 
৮। মেথাকোয়ালন  বা মেথাকোয়ালন যুক্ত যে কোন বস্তু।  
 
‘গ’ শ্রেণীর মাদকদ্রব্য
১। তাড়ী, পঁচুই ইত্যাদি। 
২। ডিনেচার্ড স্পিরিট বা মেথিলেটেড স্পিরিটl 
৩। ক্লোরডায়াজিপক্সইড, ডায়াজিপাম, অক্সাজিপাম, লোরাজিপাম, ফ্লুরাজিপাম, ক্লোরাজিপেট, নাইট্রাজিপাম, ট্রায়াজোলাম, টেমাজিপাম ইত্যাদি। 
৪। ‘খ’ শ্রেণীতে উল্লিখিত হয়নি এমন যে কোন সিডেটিড, ট্রাংকুইলাইজার বা হিপনোটিক ঔষধ।
৫। ‘ক’ বা ‘খ’ শ্রেণীতে উল্লিখিত হয়নি এমন যে কোন ষ্টিমুল্যান্টস  বা ডিপ্রোজ্যান্ট ঔষধ। 
 
Visits Total 64374338
Visits Today 29454